covid 19 Update

Top News

 

অসাবধানতাবশত ভ্যাসেল থেকে মাঝ নদীতে পড়ে গেল এক ব্যক্তি অবশেষে ভেসেল কর্মীদের তৎপরতায় প্রাণে বাঁচে ওই ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার গঙ্গাসাগরে, আজকের ০২:৪৫ মিনিট নাগাদ একটি ভেসেল লট নং-৮ থেকে  

গঙ্গাসাগরের কচুবেড়িয়া ঘাটের দিকে আসছিলেন সহদেব মন্ডল নামে স্থানীয় এক পান চাষী কাকদ্বীপ পানমার্কেট পান বিক্রি করে বাড়ি ফিরছিলেন। এমন সময় ভেসেল এর ধারে বসে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি অসাবধানতাবশত তখনই পড়ে যান মাঝ নদীতে, সঙ্গে সঙ্গে ভেসেল কর্মীদের তৎপরতায় লাইফ জ্যাকেট ও টিউবের মাধ্যমে উদ্ধার করা হয় ওই ব্যক্তিকে।

ক্যানিং পূর্ব বিধানসভার শকুন্তলা তে isf কর্মীকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। আজ সকালে যখন কালুগাজি নামে ওই ব্যক্তি চায়ের দোকানে আসছিল তখনই তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা তাকে ঘিরে ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। 
ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তড়িঘড়ি করে কালুগাজিকে উদ্ধার করে নলমুড়ি ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করায়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এখনো পর্যন্ত এলাকায় চাপা উত্তেজনা রয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী । 
অন্যদিকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। ঘটনার তদন্তে পুলিশ।
তৃতীয় দফার ভোটগ্রহণকে ঘিরে উত্তপ্ত দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিভিন্ন এলাকা। 
কাঠগড়ায় স্বয়ং কেন্দ্রীয় বাহিনী।এদিন ডায়মন্ড হারবার বিধানসভার মোল্লা পুকুরিয়া এলাকার ১১৯,১২০,১২০(a) বুথেই সকাল থেকেই ইভিএম গন্ডগোলের অভিযোগ ওঠে।
এবং এবিষয়ে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে গুরুতর আহত হন তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত  প্রধানের স্বামী। অভিযোগ এবিষয়ে প্রতিবাদ জানাতে গেলে সিআরপিএফ জওয়ান বেধড়ক মারধর করে পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামীকে   এমনটাই অভিযোগ তৃণমূলের। এছাড়াও বেশকিছু তৃণমূল কর্মী সমর্থককে মারধর করে সিআরপিএফ জওয়ান। তাদের দাবি, বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য ভোটারদের প্রভাবিত করছে সিআরপিএফ জওয়ানরা। আর সেবিষয়ে প্রতিবাদ জানাতে গেলে কপালে জুটছে বেধড়ক মার। তবে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।
#dimodharbar_news #3rd_election
ফলতা বিধানসভা কেন্দ্রের ১০৩ নাম্বার বুথে সাধারণ মানুষকে বিজেপিতে ভোট দেয়ার জন্য প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠল কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে তা নিয়েই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায় রীতিমতো ধুমধুমার পরিস্থিতি 
অন্যদিকে লাঠিচার্জ করা হয়েছে বলে অভিযোগ এমনকি বিধানসভা কেন্দ্রের এবারে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী শংকর কুমার নস্কর দীর্ঘক্ষন আটকে রাখার পাশাপাশি হেনস্থা করার অভিযোগ উঠল কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে (এক্সক্লুসিভ)
আজ তৃতীয় দফার ভোটগ্রহণ। সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন করতে প্রশাসন তৎপর। কিন্তু এর‌ইমধ্যে উত্তপ্ত হয়ে উঠল ডায়মন্ড হারবার বিধানসভার খোরদো অঞ্চল। কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী। 
খোরদো অঞ্চলের ৫৩ নং বুথের ভোটারদের অভিযোগ স্বয়ং কেন্দ্রীয় বাহিনী তাদের প্রভাবিত করছে বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য এবং তাতে রাজি না হলে কপালে জুটছে বেধড়ক মার এমনটাই অভিযোগ ডায়মন্ড হারবার বিধানসভার খোরদোর অঞ্চলের ৫৩ নং বুথের ভোটারদের। 
পাশাপাশি ফ্লাগ ফেস্টুন ছিড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। অন্যদিকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।
দমকলের ১০টি ইঞ্জিনের প্রায় চার ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসল তপসিয়ার হাওয়াই চটি কারখানার আগুন। আজ ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ তপসিয়া রোডে ওই  কারখানায় আগুন লাগে বলে জানা গিয়েছে। রবারের মতো দাহ্য পদার্থ মজুত থাকায়  মুহূর্তে জ্বলে ওঠে আগুন এবং তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে প্রথমে ঘটনাস্থলে যায় দমকলের চারটি ইঞ্জিন। পরে আরও ছয়টি ইঞ্জিন যায়।
কিন্তু ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় দমকলকর্মীদের আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয় দমকল কর্মীদের। সংলগ্ন অঞ্চলের আকাশ সঙ্গে সঙ্গেই ঘন কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। ওই কারখানার আশেপাশে বেশ কিছু কারখানা রয়েছে।সেখানেও আগুন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা ছিল। লাগোয়া বাড়িগুলি থেকে বাসিন্দাদের বের করে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে আগুন নিভলেও দীর্ঘক্ষণ চলে কুলিং ডাউন প্রক্রিয়া। প্রাথমিক তদন্তে দমকলের অনুমান রবার কাটিং-এর পুরনো মেশিনে শর্ট সার্কিটের ফলেই আগুন লেগেছিল।

ভোটের দিন মন্দিরের সামনে দুঃস্থদের মধ্যে টাকা বিলি করলেন বাঁকুড়া বিধানসভার তৃণমূল প্রার্থী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরে ভোটের লাইনে দাঁড়ানো ভোটারদের কাছে আশীর্বাদ চান তৃণমূলের তারকা-প্রার্থী।
বাঁকুড়ার ওন্দা হাইস্কুলে মহিলা পরিচালিত বুথে গেরুয়া রঙের গামছা গলায় জড়িয়ে হাজির হন বিজেপি প্রার্থীর পোলিং এজেন্টরা। কেন্দ্রীয় বাহিনী সেই গামছা খুলিয়ে তাঁদের ভিতরে ঢোকার অনুমতি দেয়।
ভোটের দিন সকালে তমলুক বিধানসভার একাধিক জায়গায় নো ভোট টু বিজেপি পোস্টার দেখা যায়। গেরুয়া শিবিরের দাবি, নেপথ্যে
 তৃণমূলের যড়ষন্ত্র রয়েছে। এনিয়ে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ বিজেপি। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

পোশাকে দলীয় প্রতীক লাগিয়ে বুথের ১০০ মিটারের মধ্যে ঢোকার অভিযোগ খড়গপুরের বিজেপি প্রার্থী হিরণ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনে কী করে ঘটছে এমন ঘটনা, এই প্রশ্ন তুলে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কর্মীরা। অভিযোগ ভিত্তিহীন, দাবি বিজেপি প্রার্থীর।

কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ খড়গপুর সদরের তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ সরকারের। অভিযোগ খতিয়ে দেখতে বুথে পৌঁছলে তৃণমূল প্রার্থীর সঙ্গে বচসা বাধে কেন্দ্রীয় বাহিনীর। পরে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেন তৃণমূল প্রার্থী।
বুথের বাইরে বেআইনি জমায়েত, বুথে এজেন্ট বসতে না দেওয়ার অভিযোগ ডেবরার বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের। পাল্টা বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে বহিরাগতদের নিয়ে বুথে ঢোকার অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। এক বিজেপি নেতাকে আটকও করে পুলিশ। যদিও তাঁর দাবি, পোলিং এজেন্ট না থাকায় ফর্ম আনতে বলেন বিজেপি প্রার্থী। সেই কারণেই ভোটার না হওয়া সত্ত্বেও বুথে আসেন ওই বিজেপি নেতা। পরে পুলিশের গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি কর্মীরা। ডেবরায় ঘটনায় রিটার্নিং অফিসারের কাছে নালিশ বিজেপি প্রার্থীর।

বয়ালের একটি বুথে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পৌঁছতেই অশান্তি শুরু হয়। এখানকার বুথে তৃণমূল এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। অবাধে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। সেখানকার ক্ষোভের কথা গ্রামবাসীরা জানান তৃণমূল প্রার্থীকে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর তরফে কোনও সাহায্য মেলেনি বলে অভিযোগ তৃণমূলের।যদিও মমতাকে দেখে বিজেপি কর্মীরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তাঁকে উদ্দেশ্য করে 'জয় শ্রীরাম' স্লোগান ওঠে মুহুর্মুহু।

ডেবরার রাধাকান্তপুর সহ ৬টি জায়গায় তৃণমূল প্রার্থী হুমায়ুন কবীরকে বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠল কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। এনিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়ান তৃণমূল প্রার্থী।

পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড় বিধানসভার তাকরাড় গ্রামে ২০৪ নম্বর বুথে মায়ের হয়ে ভোট দিলেন ছেলে। মায়ের হাত কাঁপে তাই এই ব্যবস্থা, দাবি ছেলের।প্রিসাইডিং অফিসার মন্তব্য করতে চাননি।

পূর্ব মেদিনীপুরের ময়নার বাকচা গ্রাম পঞ্চায়েতের আড়ংকিয়ারানা ১ নম্বর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২৪৪ নম্বর বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনে তৃণমূল প্রার্থী সংগ্রাম দলুইকে হুমকি দিতে দেখা যায় বিজেপির পোলিং এজেন্টকে। এনিয়ে বিজেপি নেতৃত্বের প্রতিক্রিয়া এখনও মেলেনি। ছবি তুলতে বাধা দিয়ে হুমকি দেওয়া হয় এবিপি আনন্দর প্রতিনিধিকে। ময়নার ঘটনায় রিপোর্ট চাইল নির্বাচন কমিশন।

সবংয়ের মোহাড়ে বাবার হয়ে ভোট দিলেন ছেলে। ছেলের দাবি, বাবা অসুস্থ তাই সাহায্য করেছেন। সবংয়ের মোহাড়ে দু-দু বার বিজেপি এজেন্টকে বুথ থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। পরে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিয়ে গিয়ে এজেন্টকে বুথে বসান বিজেপি প্রার্থী। পাল্টা বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে সঙ্গীদের নিয়ে বুথের দরজা পর্যন্ত ঢুকে পড়ার অভিযোগ উঠল। সঙ্গে নিরাপত্তা রক্ষীরা ছিলেন, দাবি বিজেপি প্রার্থীর।
রাজ্যে দৈনিক করোনা আক্রান্তর সংখ্যা ফের হাজার ছাড়াল। গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ১২৭৪, মৃত ২। শুধুমাত্র কলকাতায় আক্রান্ত ৩৯৯ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় আক্রান্ত ৩৪৪ জন। 
রাজনৈতিক উত্তাপ থেকে তাপমাত্রার পারদ, সবই ঊর্ধ্বমুখী। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা। ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী কোভিড আক্রান্তের গ্রাফ। 
এই পরিস্থিতিতে, ভ্যাকসিনে জোর দেওয়ার কথা বলছে রাজ্য সরকার। সূত্রের খবর, সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি, ১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার থেকে ৪৫ ঊর্ধ্বদের ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা ভাব হচ্ছে  প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রেও। 
ভোটের মরসুমে রাজনৈতিক মিটিং-মিছিলে অনেক ক্ষেত্রেই উপেক্ষিত হচ্ছে করোনা বিধি। বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।
স্বাস্থ্য দফতরের বৃহস্পতিবারের বুলেটিন অনুযায়ী, রাজ্যে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১২৭৪। শুধুমাত্র কলকাতায় আক্রান্ত ৩৯৯ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় আক্রান্ত ৩৪৪ জন।
মঙ্গলবার গোটা রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছিল ৬২৮। সোমবার সংখ্যাটা ছিল, ৬৩৯। রবিবার ছিল ৮২৭।
এই প্রেক্ষিতে করোনা বধে ভ্যাকসিন ছাড়া অন্য কোনও উপায় দেখছেন না চিকিত্‍সকরা। 
ভ্যাকসিনে গুরুত্বের পাশাপাশি, মাস্ক পরা, স্যানিটাইজার ব্যবহারেও জোর দিচ্ছে সরকার। মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোনের কথাও ভাবা হচ্ছে। 
অর্থাত্‍ কোনও বাড়ি বা ফ্ল্যাটের কেউ করোনা আক্রান্ত হলে, সেই বাড়িটিকে কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা করা হবে। 
পাশাপাশি, আক্রান্ত ব্যক্তি কোথা থেকে সংক্রমিত হলেন, তারও উৎস খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর। 

আসন্ন পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন ২০২১ -এর প্রাক্কালে যে কোনো প্রকার নাশকতা রোধের জন্য 
সুন্দরবন  পুলিশ জেলার প্রতিটি থানা এলাকার গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলে নাকা চেকিং চলছে।
In order to prevent any kind of sabotage on the eve of the forthcoming WBLA Election-
 2021, Naka checking is being carried out 
in important areas of every Police station area of ​​the Sundarban police district.


নন্দীগ্রামে গিয়ে পায়ে চোট পেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। কলকাতায় আনা হল তৃণমূলনেত্রীকে। আজ নন্দীগ্রামে থাকার কথা ছিল তাঁর। এসএসকেএম (SSKM) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাঁকে। তাঁর অভিযোগ, চক্রান্ত করে ধাক্কা মারে চার-পাঁচজন। রেয়াপাড়ায় একটি মন্দিরে হরিনাম সংকীর্তন চলছিল। সেখানে গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে ফেরার পথে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যাচ্ছে। অভিযোগ, ৪-৫ জন তাঁকে ধাক্কা মারে। প্রচণ্ড ভিড় ছিল সেই সময়। চোট পাওয়ার পর তিনি গাড়ির সামনের সিটেই বলেছিলেন। পরে যন্ত্রণা বেড়ে যাওয়ায় তাঁকে পিছনের সিটে বসানো হয়। সাড়ে ১২ নম্বর কেবিনে তাঁকে প্রাথমিক অ্যাসেসমেন্ট করা হচ্ছে। চিকিৎসকরা স্টেবিলাইজ করার চেষ্টা করছেন। এক্স-রে করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। অন্যান্য পরীক্ষা করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। বিভিন্ন বিভাগের চিকিৎসকরা এসেছেন। পায়ের চোট গুরুতর বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা। পরে এমআরআই করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। বুক, বাঁ পায়, কোমড়ে, চোট পেয়েছেন তিনি। এসএসকেম-এর উর্ডবার্ন ব্লকে ভর্তি মুখ্য়মন্ত্রী। হাসপাতালে অভিষেক (Abhishek Banerjee), ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim), অরূপ (Arup Biswas)। ব্যথা কমানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর সিটি স্ক্যান করা হবে। পোর্টেবল মেশিনে এক্স-রে করা হয়। হাসপাতালে উপস্থিত হন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)। রাজ্য়পালকে দেখে 'গো ব্যাক' স্লোগান তোলেন অনেক তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা আগে থেকেই সেখানে ছিলেন। 

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় মুড়িগঙ্গা নদীতে জলপথে চলছে নাকা চেকিং এবং গঙ্গাধরপুর অদ্যবাজারের কাছেই চলছে চেকিং এবং গঞ্জের 
বাজার  কারণ সামনে ইলেকশন, সেই জন্য সুন্দরবন পুলিশ ডিস্ট্রিক ও সাগর থানার 
পক্ষ থেকে আজকের বাংলাদেশের  জাহাজ গুলি গঙ্গাসাগর ও ঘোড়ামারা দ্বীপের মাঝখানে মুড়িগঙ্গা নদীর উপর দাঁড় করিয়ে চেকিং চলছে,
উপস্থিত ছিলেন সাগর থানার ওসি বাপি রয় , 
সুন্দরবন পুলিশ ডিস্ট্রিক এর এডিশনাল এসপি সন্তোষ কুমার মন্ডল, অ্যাসিস্ট্যান্ট কমান্ড্যান্ট কে রানবির সিং,
ভিডিও লিংক:  https://www.facebook.com/watch/?v=1147516615697707
 
এস ডিপিও সাগর দীপাঞ্জন চ্যাটার্জী, সার্কেল ইন্সপেক্টর সাগর, চন্দন কুসুম দাস, 
এবং সেন্ট্রাল ফোর্স.
অন্যদিকেও গঙ্গাধর পুর, ইলেকশন কমিশনারের নির্দেশে এবং সিভিল ডিপার্টমেন্টের প্রশাসনের নির্দেশে ব্রিজের কাছেই নাকা চেকিং পয়েন্টে চেকিং চলছে উপস্তিত রয়েছেন পাথর প্রতিমা 
থানা প্রশাসন। গঙ্গাধরপুর অদ্যবাজারের কাছেই চলছে চেকিং এবং গঞ্জের বাজার এলাকায় চলছে নাকা চেকিং। পুলিশ ও এস. এস. টি.(SST) টিম যৌথ ভাবে এই কাজটি করছেন।
আপ শিয়ালদহ - নামখানা লোকাল, শিয়ালদহ 
যাবার ট্রেন ধাক্কা মারলো একটি টাইলস বোঝাই মেশিন ভ্যানে। কুলপি স্টেশনের নিকটবর্তী 
রামকৃষ্ণপুর এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। হতাহতের কোনো খবর নেই।
Back To Top