WEATHER

Top News


জাহিরের সঙ্গে বহুদিনের প্রেম সোনাক্ষী সিনহার। যদিও সম্পর্কে শিলমোহর কোনওদিনই দিতে দেখা যায়নি তাঁদের। সোনাক্ষীর থেকে বয়সে খানিক ছোট জাহির। তবে বয়স, ধর্ম– এই সব কখনওই তাঁদের সম্পর্কে বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। মিল হয়েছে মনের।

কোন ধর্মমতে বিয়ে হবে শত্রুঘ্নের মেয়ের? উত্তর দিলেন পাত্র জাহিরের বাবা


বলিউডে আবারও এক হেভিওয়েট বিয়ে। আজ অর্থাৎ রবিবারই ‘ডি-ডে’। সকাল থেকেই শত্রুঘ্ন সিনহার বাড়ি ‘রামায়ণ’-এর সামনে পাপারাৎজির ভিড়। গতকাল অর্থাৎ শনিবার আয়োজিত হয়েছে এক পুজোরও। সোনাক্ষী সিনহা ও জাহির ইকবালের বিয়ে নিয়ে প্রথম থেকেই হচ্ছে নানা আলোচনা। ভিনধর্মে বিয়ে নিয়ে রটছে নানা কথা। শোনা গিয়েছিল জাহির ইকবালকে বিয়ের জন্য নাকি নিজের ধর্ম পরিবর্তন করতে চলেছেন সাংসদ কন্যা। যদিও সেই খবরকে নস্যাৎ করে জাহিরের বাবা জানিয়েছেন এ খবর মোটেও সত্য নয়। এবার প্রশ্ন, হিন্দু নাকি ইসলাম– কোন ধর্মমতে বিয়ে হচ্ছে সোনাক্ষীর?


সে উত্তরও দিয়েছেন জাহিরের বাবাই। তিনি জানিয়েছেন কোনও ধর্মরীতি মেনেই হচ্ছে না বিয়ে। কাছের মানুষদের সাক্ষী রেখে আইনি বিয়ে সারছেন ওই জুটি। সন্ধেবেলায় শিল্পা শেট্টির হোটেলে আয়োজন করা হয়েছে খাওয়াদাওয়ার। বি-টাউনের অনেক পরিচিত মুখকে দেখতে পাওয়া যাবে সেখানে।



জাহিরের সঙ্গে বহুদিনের প্রেম সোনাক্ষী সিনহার। যদিও সম্পর্কে শিলমোহর কোনওদিনই দিতে দেখা যায়নি তাঁদের। সোনাক্ষীর থেকে বয়সে খানিক ছোট জাহির। তবে বয়স, ধর্ম– এই সব কখনওই তাঁদের সম্পর্কে বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। মিল হয়েছে মনের। মিল হয়েছে দু’জনের।কিছু দিন আগেই খবর এসেছিল ভিনধর্মে বিয়ে করার সিদ্ধান্তের জন্য নাকি মেয়ের বিয়েতে হাজির হবেন না শত্রুঘ্ন সিনহা। এও শোনা যায়, এই বিয়েতে নাকি একেবারেই মত নেই তাঁর! তবে বিয়ের দিন তিনেক আগে এ নিয়ে রটা যাবতীয় রটনা নিমেষে নস্যাৎ করে শত্রুঘ্ন বলেন, ‘খামোশ! নিজের চড়কায় তেল দাও।” সাফ জানিয়ে দেন মেয়ের বিয়েতে অবশ্যই হাজির থাকবেন তিনি।

 অভিনয় জগতের যুক্ত শুভ্রজিৎও। বেশ কিছু ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছে তাঁকে। অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কাকে শেষ দেখা গিয়েছে 'অষ্টমী' ধারাবাহিকে। গত বছরেই সায়ন্তের সঙ্গে প্রেম ভেঙেছিল প্রিয়াঙ্কার। যদিও কী কারণে, তা জানা যায়নি।

প্রিয় বন্ধুর প্রাক্তন প্রেমিকার সঙ্গেই সম্পর্ক, কবে বিয়ে শুভ্রজিৎ-প্রিয়াঙ্কার?
অভিনয় জগতের যুক্ত শুভ্রজিৎও। বেশ কিছু ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছে তাঁকে। অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কাকে শেষ দেখা গিয়েছে 'অষ্টমী' ধারাবাহিকে। গত বছরেই সায়ন্তের সঙ্গে প্রেম ভেঙেছিল প্রিয়াঙ্কার। যদিও কী কারণে, তা জানা যায়নি।


টলিপাড়ার ফের একবার মন দেওয়া নেওয়ার গল্প। শোনা যাচ্ছে, বিয়ে করতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা মিত্র। ধারাবাহিক ‘খড়কুটো’তে যিনি চিনি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। শোনা যাচ্ছে প্রেমিক শুভ্রজিৎ সাহার সঙ্গে এই বছরের অক্টোবরেই আইনি বিয়ে সেরে ফেলছেন তিনি। যদিও সামাজিক বিয়ে গড়াতে পারে আগামী বছর। এর আগে সায়ন্ত মোদকের সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। শুভ্রজিৎ আবার সায়ন্তর ভাল বন্ধু ছিলেন। সায়ন্তের এক ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে। মাঝেমধ্যেই তাঁদেরকে একসঙ্গে দেখা যেত সেখানে। তবে সে সব অতীত। আপাতত শুভ্রজিৎ মজেছেন বন্ধুর প্রাক্তন প্রেমিকাতেই।


অভিনয় জগতের যুক্ত শুভ্রজিৎও। বেশ কিছু ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছে তাঁকে। অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কাকে শেষ দেখা গিয়েছে ‘অষ্টমী’ ধারাবাহিকে। গত বছরেই সায়ন্তের সঙ্গে প্রেম ভেঙেছিল প্রিয়াঙ্কার। যদিও কী কারণে, তা জানা যায়নি। সম্প্রতি এক রিয়ালিটি শো’য়ে হাজির হয়ে প্রিয়াঙ্কা জানিয়েছিলেন এবার এক সুস্থ প্রেম করতে চান তিনি। অবশেষ তাঁর সেই ইচ্ছে পূরণ হয়েছে বলেই মনে করছেন তিনি।


অন্যদিকে প্রেম প্রকাশে পিছিয়ে নেই শুভ্রজিৎও। তাঁর ইনস্টা খুললেই দেখা যাচ্ছে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে ছবি। লুকোছাপা নয়, প্রেমটা জানিয়েই করছেন তাঁরা। প্রাক্তন সায়ন্তও জানিয়েছেন শুভেচ্ছা। আগামী বছর কবে তাঁরা বিয়ের পিঁড়িতে বসেন এখন সেটাই দেখার।

আজ শনিবার ইউরো কাপে মুখোমুখি মেসি ও রোনাল্ডো! তুরস্কের আর্দা গুলেরকে 'মেসি' বলে ডাকছে ফুটবল দুনিয়া। রিয়াল মাদ্রিদের ভবিষ্যৎ তাঁর হাতে। সেই আর্দা নামবেন রিয়ালের অতীতের তারকার সামনে। তুরস্ক আর পর্তুগালের ম্যাচে সিআর সেভেনই থাকবেন নজরে।

 অবিশ্বাস্য দৌড় ভক্তের ভগবানের, ল্যাম্পার্ডও হতবাক

অবিশ্বাস্য দৌড় ভক্তের ভগবানের, ল্যাম্পার্ডও হতবাক

কলকাতা: ৪০ ছুঁই ছুঁই ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (Cristiano Ronaldo) আজও বছর কুড়ির তরুণের মতো ফিট। তাঁর ফিটনেস দেখে অনেকের ঈর্ষা হতে পারে। সিআর সেভেনকে নিজের আদর্শ মনে করা তরুণ ফুটবলারের সংখ্যাও অনেক। বর্তমানে রোনাল্ডোর ফোকাস ইউরো কাপে। গ্রুপ এফ-এ আজ তুর্কির বিরুদ্ধে পর্তুগালের ম্যাচ। তার আগে রোনাল্ডোকে দেখা গিয়েছে অন্য অবতারে। ভক্তদের কাছে রোনাল্ডো ভগবান। তাঁর সঙ্গে সেলফি তোলার আবদার নিয়ে বেশ কয়েকজন পর্তুগালের অনুরাগী হাজির হয়েছিলেন। তাঁদের জন্য ঝোপঝাড়ের পাশ দিয়ে দৌঁড়ে যান রোনাল্ডো এবং তাঁদের মুখে হাসি ফোটান।


এ বার আসা যাক ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড প্রসঙ্গে। রোনাল্ডোর জন্য তিনি কেন তিনি হতবাক? ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ফুটবলার সম্প্রতি বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, তিনি রোনাল্ডোর সঙ্গে ছুটি কাটাতে যেতে নারাজ। কিন্তু কেন? ল্যাম্পার্ডের কথায়, ‘কয়েক মাস আগে আমি ছুটি কাটাতে গিয়েছিলাম। ওর (ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো) সঙ্গে দেখা হয়েছিল। বিচে ঘুরতে গিয়েছিলাম। সেখানে আমরা একই হোটেলে ছিলাম। সেই সময় মনে হয়েছে ওর সঙ্গে দূরত্ব রাখা দরকার। কারণ ও বিরাট ফিট। আমার ছেলে সঙ্গে ছিলাম। রোনাল্ডোর সঙ্গে একটা ছবি তুলতে গিয়েছিলাম। তার আগে আমি টি-শার্ট পরে নিয়েছিলাম। যাতে ওর সঙ্গে একটা ভালো ছবি হয়।’


ছুটিতেও রোনাল্ডো জিম সেশনে ফাঁকি দেন না। ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি লক্ষ্য করেছি ও ছুটি কাটাতে গিয়েও ২ বার জিম করত এবং ব্যক্তিগত ফিটনেস ট্রেনারও নিয়ে গিয়েছিল। যা পরিষ্কার করে ওর নিজের ফিটনেসের প্রতি কতটা ভালোবাসা রয়েছে।’


আজ শনিবার ইউরো কাপে মুখোমুখি মেসি ও রোনাল্ডো! তুরস্কের আর্দা গুলেরকে ‘মেসি’ বলে ডাকছে ফুটবল দুনিয়া। রিয়াল মাদ্রিদের ভবিষ্যৎ তাঁর হাতে। সেই আর্দা নামবেন রিয়ালের অতীতের তারকার সামনে। তুরস্ক আর পর্তুগালের ম্যাচে সিআর সেভেনই থাকবেন নজরে। দুই টিমই নিজেদের প্রথম ম্যাচ জিতে টেবলের প্রথম দুই স্থানে রয়েছে। এই ম্য়াচে এ বার মেসিকে হারিয়ে জয় পেতে চান রোনাল্ডো।

 কাছে পেলে রোনাল্ডো যেন কিছুতেই ফেরাতে পারেন না। একজন বাবা হিসেবে তাঁর একটা আবেগ কাজ করেই। খুদে ফ্যানদের জন্য নিরাপত্তা নিয়েও ভাবতে নারাজ। তুরস্কের বিরুদ্ধে রোনাল্ডোর সঙ্গে সেলফি তোলার যেন লাকি ড্র হল। সফল এক খুদে। সব মিলিয়ে পাঁচ জন চেষ্টা করেছিলেন! বাকি চারজনকে অবশ্য নিরাপত্তারক্ষীরা দ্রুতই বের করে নিয়ে যান।


রোনাল্ডোর সঙ্গে সেলফির লাকি ড্র! পাঁচজনের চেষ্টা, সফল এক খুদে


স্ট্রাইকাররা নাকি স্বার্থপর হন! ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো সম্পর্কে এই দুর্নাম আরও অনেক অনেক বেশি। তবে তিনি যে কত বড় টিম ম্যান, সেটা অনেকেরই নজরে পড়ে না। তুরস্কের বিরুদ্ধে আরও একবার সেটাই করে দেখালেন কিংবদন্তি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ম্যাচের ৫৫ মিনিটে পর্তুগালের তৃতীয় গোলটি করেন ব্রুনো ফার্নান্ডেজ। অথচ বল ছিল রোনাল্ডোর পায়ে। সামনে শুধুই গোলকিপার। রোনাল্ডো চাইলে গোল করা তাঁর কাছে জল ভাত। অথচ বাঁ দিকে থাকা সতীর্থ ব্রুনোকে পাস বাড়ালেন। সেই থেকেই জালে বল জড়ালেন রোনাল্ডো। তেমনই এক খুদের আবদারও মেটালেন। সতীর্থ হোক বা ফ্যান, সকলের জন্যই দিলদরিয়া রোনাল্ডো।


বাচ্চাদের কাছে পেলে রোনাল্ডো যেন কিছুতেই ফেরাতে পারেন না। একজন বাবা হিসেবে তাঁর একটা আবেগ কাজ করেই। খুদে ফ্যানদের জন্য নিরাপত্তা নিয়েও ভাবতে নারাজ। তুরস্কের বিরুদ্ধে রোনাল্ডোর সঙ্গে সেলফি তোলার যেন লাকি ড্র হল। সফল এক খুদে। সব মিলিয়ে পাঁচ জন চেষ্টা করেছিলেন! বাকি চারজনকে অবশ্য নিরাপত্তারক্ষীরা দ্রুতই বের করে নিয়ে যান। খুদের আবদার মেটাতে ভোলেননি রোনাল্ডো। সেই খুদের স্বপ্ন পূরণ করলেও বাকিদের কী শাস্তি হতে পারে, এটাই আলোচনার!


নিরাপত্তাবেষ্টনী ভেঙে মাঠে ঢোকার ক্ষেত্রে অনেক দর্শকেই আজীবন নির্বাসন দেওয়া হয়। বাকি চারজনের ক্ষেত্রে কী হবে বলা কঠিন। তবে খুদের যে শাস্তি হবে না, এটুকু বলাই যায়। কিংবদন্তি রোনাল্ডোর কাছে আসার জন্য ফ্যানেরা যা খুশি করতে পারেন। সে কারণেই প্রশ্ন উঠছে নিরাপত্তা নিয়ে। সেই খুদে ফ্যানও দৌড়ে এক ছুটে চলে যায় রোনাল্ডোর কাছে। রোনাল্ডো তার জন্য পোজও দেন। সেলফির আবদার মিটতেই আবারও ছুট। নিরাপত্তাকর্মীরা তার পেছনে দৌড়ন। সাইড লাইনে গিয়েই দৌড় থামায় সেই খুদে।


পর্তুগালের ওপেন প্র্যাক্টিস সেশনেও এমনটা দেখা গিয়েছে। প্রায় ১২ জন ফ্যান রোনাল্ডোর কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। রোনাল্ডোর সতীর্থরাই বেশির ভাগ ক্ষেত্রে আটকে দিয়েছেন তাঁদের। রোনাল্ডো নিজেও নিরাপত্তা নিয়ে অসন্তুষ্ট। খুদে ফ্যানের ক্ষেত্রে নরম হলেও, বাকিদের জন্য একেবারেই সন্তুষ্ট নন রোনাল্ডো।


 এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জসপ্রীত বুমরার হাত দিয়ে রান গলছে না। যে কারণে বিশ্বকাপের মাঝে উঠেছে এক মজার প্রশ্ন। তা হল, জসপ্রীত বুমরা কি ব্যক্তিগত জীবনেও এত কিপ্টে?

জসপ্রীত বুমরা কি ব্যক্তিগত জীবনেও এত কিপ্টে? বিশ্বকাপের মাঝে উঠছে মজার প্রশ্ন...
জসপ্রীত বুমরা কি ব্যক্তিগত জীবনেও এত কিপ্টে? বিশ্বকাপের মাঝে উঠছে মজার প্রশ্ন...


কলকাতা: বাইশ গজের পিচ ব্যাটিং প্যারাডাইস হোক বা বোলারদের স্বর্গরাজ্য জসপ্রীত বুমরা (Jasprit Bumrah) যখন নামেন, ঝড় তোলেন। এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (T20 World Cup) জসপ্রীত বুমরা আরও বিধ্বংসী। এ বারের বিশ্বকাপে জসপ্রীত বুমরা আরও ভয়ঙ্কর। এ বারের বিশ্বকাপে জসপ্রীত বুমরার হাত দিয়ে রান গলছে না। যে কারণে বিশ্বকাপের মাঝে উঠেছে এক মজার প্রশ্ন। তা হল, জসপ্রীত বুমরা কি ব্যক্তিগত জীবনেও এত কিপ্টে? তাঁর চলতি টি-২০ বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স দেখলে যে কেউ এমনটা বলতেই পারেন।


এ বারের বিশ্বকাপে এখনও অবধি জসপ্রীত বুমরার পারফরম্যান্স —


আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে জসপ্রীত বুমরা ৩ ওভার বল করেছিলেন। ১টি মেডেন সহ ৬ রান দিয়েছিলেন। তিনি ওই ম্যাচে নিয়েছিলেন ২টি উইকেট। আইরিশদের বিরুদ্ধে তাঁর বোলিংয়ে কোনও চার, ছয় আসেনি।
পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জসপ্রীত বুমরা ৪ ওভার বল করেছিলেন। ১৪ রান দিয়ে তিনটি উইকেট নিয়েছিলেন। ওই ম্যাচে তাঁর বোলিংয়ে একটি চার এসেছিল।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ৪ ওভার বল করেছিলেন জসপ্রীত বুমরা। ২৫ রান দিয়েছিলেন জসপ্রীত বুমরা। কোনও উইকেট পাননি। ওই ম্যাচে তাঁর বোলিংয়ে একটি চার ও একটি ছয় এসেছিল।
আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ৪ ওভারে ১টি মেডেন সহ ৭ রান দিয়েছিলেন জসপ্রীত বুমরা। নিয়েছিলেন ৩টি উইকেট। ওই ম্যাচে তাঁর বোলিংয়ে একটি চার এসেছিল।
বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ৪ ওভার বল করেছিলেন জসপ্রীত বুমরা। তিনি নিয়েছিলেন ২টি উইকেট। আর দিয়েছিলেন ১৩ রান। ওই ম্যাচে তাঁর বোলিংয়ে একটি চার এসেছিল। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৮ এর নীচে ইকোনমিক রেট থাকা মানেই বিরাট ব্যাপার। সেখানে এ বারের বিশ্বকাপে এখনও অবধি ৫ ম্যাচে বুমরার পারফরম্যান্স ১৯-২-৬৫-১০। তাঁর ইকোনমিক রেট ৩.৪২।


এখনও অবধি ৫ ম্যাচ খেলে ১০ উইকেট নিয়েছেন। আর তাঁকে হজম করতে হয়েছে ৪টি চার ও ১টি ছয়। অ্যান্টিগায় ব্যাটারদের প্যারাডাইস বলা হলেও বুমরার কাছে ওই মাঠও যেন জলভাত। আটোসাঁটো বোলিং, রান কম খরচ করা দিন দিন অভ্যাসে পরিণত করেছেন বুমরা।

 প্রথমে ডাক্তারির প্রবেশিকা পরীক্ষা নিট, তারপর ইউজিসি-নেট... একের পর এক পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে শিক্ষা মহলে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে এনটিএ-র ভূমিকা নিয়েও। এসবের মধ্যেই এবার ইসরোর প্রাক্তন কর্তার নেতৃত্বে সাত সদস্যের এই কমিটি গঠন যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

পরীক্ষা প্রক্রিয়ায় আসবে আমুল সংস্কার, প্রাক্তন ISRO কর্তার নেতৃত্বে টিম বানাল শিক্ষামন্ত্রক
কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান।

পরীক্ষা পদ্ধতি স্বচ্ছ, মসৃণ ও সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে এবার উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করল শিক্ষামন্ত্রক। পরীক্ষা পদ্ধতিতে কোথায় কী সংস্কারের প্রয়োজন, তা ঠিক করতে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে তৈরি করা হয়েছে সাত সদস্যের একটি কমিটি। কমিটির নেতৃত্বে রয়েছেন ইসরোর প্রাক্তন চেয়ারম্যান ডঃ কে রাধাকৃষ্ণন। এছাড়াও দিল্লি এইমসের প্রাক্তন ডিরেক্টর চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া। সাত সদস্যের এই কমিটিতে আছেন আইআইটি দিল্লি ও আইআইটি মাদ্রাজের অধ্যাপকও।


প্রথমে ডাক্তারির প্রবেশিকা পরীক্ষা নিট, তারপর ইউজিসি-নেট… একের পর এক পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে শিক্ষা মহলে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে এনটিএ-র ভূমিকা নিয়েও। এসবের মধ্যেই এবার ইসরোর প্রাক্তন কর্তার নেতৃত্বে সাত সদস্যের এই কমিটি গঠন যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। জানা যাচ্ছে, এই উচ্চ পর্যায়ের কমিটি কমিটি পরীক্ষার প্রক্রিয়ায় সংস্কার, ডেটা সুরক্ষা প্রোটোকলের উন্নতি এবং ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির (NTA) কাঠামো ও কার্যকারিতার বিষয়ে সুপারিশ করবে।


ইসরোর প্রাক্তন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সাত সদস্যের এই কমিটি সব দিক খতিয়ে দেখে আগামী দুই মাসের মধ্যে একটি রিপোর্ট জমা দেবে শিক্ষামন্ত্রকের কাছে। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে যে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে দেশজুড়ে, তার জেরেই শিক্ষামন্ত্রকের এই পদক্ষেপ বলে ধারণা ওয়াকিবহাল মহলের।

কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান এক্স হ্যান্ডেলে জানিয়েছেন, স্বচ্ছ ও নির্ভুল পরীক্ষা নিশ্চিত করতে সরকার দায়বদ্ধ। সেই কারণেই বিশেষজ্ঞদের নিয়ে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শনিবার সকালেই আগুন লাগে গার্স্টিন প্লেসে। ব্যাঙ্কশাল আদালতের পাশে একটি পুরনো বাড়িতে আগুন লাগে। এই ঘটনা ঘিরে আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। আবারও সন্ধ্যায় আগুন লাগার ঘটনা খাস কলকাতায়। দমকলের চারটি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। দমকলের আধিকারিকও জানান, দাহ্যবস্তু অনেক কিছু পড়েছিল। তবে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সেরকম কিছু চোখে পড়েনি তাঁদের। 

যোধপুর পার্কে ডমিনোজ় পিৎজার গোডাউনে আগুন, আতঙ্কে এলাকাবাসী

 ফের কলকাতায় আগুন। শনিবার আগুন লাগে যোধপুর পার্কের একটি আবাসনের নিচে। সেখানে ডমিনোজ়ের একটি দোকান আছে। বেসমেন্টে তারাই একটি ঘর গোডাউন হিসাবে ব্য়বহার করে বলে দাবি আবাসনের বাসিন্দাদের। তাঁরা জানান, সেই গোডাউনে প্রচুর রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার মজুত করা ছিল। বড় বিপদ ঘটতে পারত বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন। যদিও খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকল বাহিনী। দ্রুততার সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেও আনে। হতাহতের কোনও খবর বলেই জানিয়েছে দমকল। তবে বহু কাগজপত্র পুড়ে গিয়েছে।


আবাসনের এক বাসিন্দা বলেন, “হঠাৎ দেখলাম আগুন। অথচ দমকলকে কেউ ডাকছে না পর্যন্ত। এদিকে অগ্নিনির্বাপক কোনও ব্যবস্থাও নেই। তারপর দমকলে আমিই ফোন করি। যেখানে আগুন লাগে সেটা ডমিনোজ় ব্যবহার করে। তারা খুবই ভাল কাজ করেছে।” আবাসনে থাকেন ওই মহিলার মা। তিনি সে সময় ছাদে ছিলেন। বয়স্ক মানুষ ঘাবড়ে যান তিনি। পরে যদিও দমকলের তৎপরতায় নিচে নামিয়ে আনা হয় তাঁকে।

স্টেশন অফিসার হেড কোয়ার্টার (ফায়ার স্টেশন) সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “বিল্ডিংয়ের বেসমেন্টে আগুন লেগেছে। কয়েকটা গ্যাস সিলিন্ডার ছিল। ইলেট্রিকাল স্কুটারও ছিল। তাতেই প্রাথমিকভাবে আগুন লাগে। আমরা যখন প্রথম দেখি আগুন ও ধোঁয়া ছিল। তবে দমকল বাহিনী তা নিয়ন্ত্রণ করে। যদিও ধোঁয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছিল। এখন মোটামুটি সবটা নিয়ন্ত্রণে। কীভাবে আগুন লেগেছে তা এখনই বলা মুশকিল।”


শনিবার সকালেই আগুন লাগে গার্স্টিন প্লেসে। ব্যাঙ্কশাল আদালতের পাশে একটি পুরনো বাড়িতে আগুন লাগে। এই ঘটনা ঘিরে আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। আবারও সন্ধ্যায় আগুন লাগার ঘটনা খাস কলকাতায়। দমকলের চারটি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। দমকলের আধিকারিকও জানান, দাহ্যবস্তু অনেক কিছু পড়েছিল। তবে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সেরকম কিছু চোখে পড়েনি তাঁদের।




 টি-২০ বিশ্বকাপের ইতিহাসে এই প্রথম বার অস্ট্রেলিয়াকে হারাল আফগানিস্তান। ২০২১ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। গত বছরের ওডিআই বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নও অস্ট্রেলিয়া। সেই অজিদের এ বার হারিয়ে বেশ চমক দেখাল আফগানিস্তান।

চ্যাম্পিয়ন'দের ভাগ্য ঝুলিয়ে রাখল আফগানিস্তান, টি-২০ বিশ্বকাপে ইতিহাস রশিদদের


চ্যাম্পিয়ন'দের ভাগ্য ঝুলিয়ে রাখল আফগানিস্তান, টি-২০ বিশ্বকাপে ইতিহাস রশিদদের

না কোনও অঘটন নয়। ক্রিকেট মহল বলছে, যোগ্য দল হিসেবে টি-২০ বিশ্বকাপের সুপার এইটের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছে আফগানিস্তান। রশিদ-গুলবদিনরা এই প্রথম বার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়াকে হারালেন। টি-২০ বিশ্বকাপের (T20 World Cup 2024) সুপার এইটে আর মাত্র ৪টি ম্যাচ বাকি। কিন্তু এখনও কোনও টিম সেমিফাইনালের যোগ্যতা অর্জন করেনি। ক্রিকেট মহল এই পরিস্থিতিতে বলছে অজিদের উড়িয়ে আফগান কাব্য লিখলেন রশিদ-গুলবদিনরা।


২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। সেই চ্যাম্পিয়নদের ভাগ্য এ বারের টি-২০ বিশ্বকাপে ঝুলিয়ে রাখল আফগানরা। ক্রিকেট বিশ্বে ধীরে ধীরে আফগানিস্তান নিজেদের ক্ষমতা প্রমাণ করছে। গত বছরের ওডিআই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিল আফগানিস্তান। এ বার টি-২০ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়াকে হারালেন রশিদরা। আফগানদের নোটবুকে এ+ স্কোরই আসছে। ফিরে যাওয়া যাক ২০২৩ এর ওডিআই বিশ্বকাপে। অস্ট্রেলিয়াকে সে বারও হারাতে পারত আফগানরা। যদি অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ২০১ রানের অপরাজিত মহাকাব্যিক ইনিংস উপহার না দিতেন, তা হলে ওডিআই বিশ্বকাপেও অজিদের হারিয়ে দিত আফগানিস্তান। সেটা না হলেও এ বার টি-২০ বিশ্বকাপে ইতিহাস গড়লেন আফগানিস্তানের ক্রিকেটাররা।

টস জিতে প্রথমে আফগানদের ব্যাটিংয়ে পাঠান অজি ক্যাপ্টেন মিচেল মার্শ। আফগানিস্তানের দুই ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও ইব্রাহিম জাদরান ১১৮ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। এই জুটি ভাঙে ১৫.৫ ওভারে। মার্কাস স্টইনিস ফেরান গুরবাজকে। ৪৯ বলে ৬০ রান করেন নাইট তারকা গুরবাজ। এরপর ১৬.৩ ওভারে অজমতউল্লাহ ওমরজাইকে ফেরান অ্যাডাম জাম্পা। ২ রানে ফেরেন তিনি। ওই একই ওভারের শেষ বলে ইব্রাহিম জাদরানের উইকেট তোলেন জাম্পা। ৫১ রানে ফেরেন জাদরান। করিম জানাত ১৩ রান করেন। মহম্মদ নবি ১০ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ অবধি ৬ উইকেটে ১৪৮ রান তোলে আফগানিস্তান। বাংলাদেশের পর আফগানিস্তানের বিরুদ্ধেও হ্যাটট্রিক করেন কামিন্স। ২ উইকেট জাম্পার। আর একটি নেন স্টইনিস।


১৪৯ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে প্রথমেই ধাক্কা খায় অজিরা। ওপেনার ট্রাভিস হেডকে শূন্যে ফেরান নবীন উল হক। পাওয়ার প্লে-র মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া। ওয়ার্নার ৩ রান করেন। ক্যাপ্টেন মার্শ ১২। অজিদের হয়ে লড়াই করেন অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তিনি ৪১ বলে ৫৯ রান করেন। কিন্তু তা দলকে জেতানোর জন্য যথেষ্ট ছিল না। আফগান আগ্রাসনের কাছে মাথা নত করতে হয় অস্ট্রেলিয়াকে। গুলবদিন নায়েব ৪ ওভারে ২০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন। ৪ বল বাকি থাকতেই ১২৭ রানে অলআউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। যার ফলে ২১ রানে ম্যাচ জিতে নেয় আফগানিস্তান। ম্যাচের সেরার পুরস্কার পান গুলবদিন নায়েব।

শুক্রবারই বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি জানায়, বিশেষ কারণে দ্য কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাসট্রিয়াল রিসার্চ বা সিএসআইআর নেট আপাতত স্থগিত রাখছে। পরবর্তী পরীক্ষার দিনক্ষণ নিয়ে এখনও কোনও ইঙ্গিত মেলেনি। তবে শনিবার সন্ধ্য়ায় বড় সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

নিট-পিজি পরীক্ষাও নেওয়া হচ্ছে না, পরীক্ষার আগের রাতে এল নোটিস
প্রতিবাদে সরব পরীক্ষার্থীরা।



কলকাতা: নিট বিতর্কের মাঝে আরও এক পরীক্ষা স্থগিত করা হল। নিট পিজি (NEET PG) স্থগিত করা হল। এবার মেডিক্যালের স্নাতকোত্তর স্তরের প্রবেশিকা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক। রবিবার ছিল নিট-পিজির পরীক্ষা। ঠিক তার আগের সন্ধ্যায় জানানো হল রবিবারের পরীক্ষা আপাতত নেওয়া হচ্ছে না। কারণ হিসাবে তুলে ধরা হয়েছে সাম্প্রতিক বিতর্কের কথা।


নেট ও নিট নিয়ে একাধিক অভিযোগ উঠেছে গত কয়েকদিনে। প্রশ্ন ফাঁস থেকে দুর্নীতি, একের পর এক মারাত্মক সব অভিযোগে দুষ্ট এই দুই প্রবেশিকা। সেই আবহে স্বচ্ছতার স্বার্থেই নিট পিজি এন্ট্রান্স (NEET PG Entrance) বাতিল করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। একের পর এক পরীক্ষা বাতিল হচ্ছে এবার।

এই পরীক্ষা আয়োজন করে ন্যাশনাল বোর্ড অব এক্সামিনেশন। তারা এদিন বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, রবিবার পরীক্ষা হচ্ছে না। পরীক্ষার পরবর্তী দিনক্ষণ দ্রুতই ঘোষণা করা হবে। ইতিমধ্যেই সিএসআইআর-নেট স্থগিত করা হয়েছে।


শুক্রবারই বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি জানায়, বিশেষ কারণে দ্য কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাসট্রিয়াল রিসার্চ বা সিএসআইআর নেট আপাতত স্থগিত রাখছে। পরবর্তী পরীক্ষার দিনক্ষণ নিয়ে এখনও কোনও ইঙ্গিত মেলেনি। তবে শনিবার সন্ধ্য়ায় বড় সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি বা এনটিএ-এর ডিরেক্টর জেনারেল বা ডিজি সুবোধ কুমার সিংকে অপসারিত করা হয়। নতুন ডিজি হিসাবে এই পদে আনা হয় অবসরপ্রাপ্ত আইএএস প্রদীপ সিং খারোলাকে।



রেলের টিকিট কাটা, স্টেশনের ওয়েটিং রুম এবং মালপত্র রাখার ঘরের ভাড়ার জন্য এতদিন রেলের তরফে যে জিএসটি নেওয়া হত, সেটিতেও ছাড় দেওয়া হয়েছে। স্টেশনে ব্যবহৃত ব্যাটারি চালিত গাড়িগুলির ব্যবহারের উপরেও আর কোনও জিএসটি থাকছে না।

GST Council Meeting: কমবে ট্রেনের ভাড়া! GST কাউন্সিলের বৈঠকে এল বড় সিদ্ধান্ত
লোকাল ট্রেন (প্রতীকী ছবি)

শনিবার জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকের আগে থেকেই বিভিন্ন ব্যবসায়ী মহল থেকে দাবি উঠছিল, যাতে কিছু কিছু ক্ষেত্রে জিএসটি কমানো হয়। নতুন সরকার গঠনের পর শনিবারই প্রথম বৈঠকে বসেছিল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের নেতৃত্বাধীন জিএসটি কাউন্সিল। ব্যবসায়ীদের একাংশের যে দাবি-দাওয়াগুলি উঠছিল, সেগুলি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা এবার জিএসটি কাউন্সিল বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বাইরে কোনও হস্টেলে পড়ুয়ারা থাকলে, সেক্ষেত্রে জিএসটি দিতে হবে না। তবে এক্ষেত্রে মাথা পিছু প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা ভাড়া হতে হবে। কোনও পড়ুয়া হস্টেলে অন্তত ৯০ দিন থাকলে, তবেই এই ছাড় কার্যকর হবে।


এছাড়া রেলের টিকিট কাটা, স্টেশনের ওয়েটিং রুম এবং মালপত্র রাখার ঘরের ভাড়ার জন্য এতদিন রেলের তরফে যে জিএসটি নেওয়া হত, সেটিতেও ছাড় দেওয়া হয়েছে। স্টেশনে ব্যবহৃত ব্যাটারি চালিত গাড়িগুলির ব্যবহারের উপরেও আর কোনও জিএসটি থাকছে না।


এর পাশাপাশি দুধের কৌটার উপর ১২ শতাংশ হারে জিএসটির সুপারিশ করা হয়েছে। সোলার কুকার, স্প্রিঙ্কলারের উপরেও ১২ শতাংশ হারে জিএসটির সুপারিশ করা হয়েছে এদিনের বৈঠকে। কার্টুন বাক্সের উপরেও জিএসটি ১৮ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১২ শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে।



এক আধিকারিক জানান, আগুন এতটাই ছড়িয়ে পড়েছিল যে আশেপাশের সমস্ত দমকল দফতর থেকে ইঞ্জিন আনানো হয়েছিল। একের পর এক ইঞ্জিন যখন পৌঁছচ্ছে, তখনও লাগাতার বিস্ফোরণ হয়ে চলেছিল কারখানায়। 

হাওয়া উড়ল হাত-পা, কারখানায় পরপর বিস্ফোরণে জ্বলে উঠল গোটা এলাকাই! ভিডিয়ো দেখলে গায়ে কাঁটা দেবে
বিস্ফোরণের মুহূর্ত।


গুরুগ্রাম: হঠাৎ গগনভেদী একটা শব্দ। গোটা এলাকাটাই যেন এক নিমেষে আলোয় ঝলমল করে উঠল। কিন্তু সেই আলো এমনি নয়, ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণের, যার জেরে কেঁপে উঠল গোটা লোকালয়। বিস্ফোরণের জেরে উড়ল কারখানার শ্রমিকদের হাত-পা, কার্যত ধুয়ে-মুছে সাফ চত্বর। শনিবার দৌলতাবাদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে মৃত্যু হল কমপক্ষে ৪ শ্রমিকের। আহত আরও ১০ জন।


পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার গুরুগ্রামের দৌলতাবাদ শিল্পাঞ্চলে বিস্ফোরণ হয়। একটি ফায়ারবল তৈরির কারখানা, যা অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্রে ব্যবহার হয়, সেই জিনিস তৈরির কারখানায় বিস্ফোরণ হয়। একের পর এক বিস্ফোরণ হতেই থাকে। এর জেরে গুরুতর জখম হয় কারখানার কর্মী-শ্রমিকরা। কমপক্ষে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।


সোশ্যাল মিডিয়ায় পাওয়া একটি ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে বিস্ফোরণের মুহূর্তের ভিডিয়ো। সেই ভিডিয়োয় কারখানাটি সরাসরি দেখা না গেলেও, বিস্ফোরণের জেরে গোটা এলাকা আলোকিত হয়ে উঠছে। এরপরই কালো ধোঁয়া ও ধুলোবালিতে গোটা এলাকা ঢাকা পড়ে যায়।


আগুন লাগার খবর পেতেই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় দমকলের ২৪টি ইঞ্জিন। এক আধিকারিক জানান, আগুন এতটাই ছড়িয়ে পড়েছিল যে আশেপাশের সমস্ত দমকল দফতর থেকে ইঞ্জিন আনানো হয়েছিল। একের পর এক ইঞ্জিন যখন পৌঁছচ্ছে, তখনও লাগাতার বিস্ফোরণ হয়ে চলেছিল কারখানায়।

বিস্ফোরণের জেরে আশেপাশের একাধিক বিল্ডিংও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রাতভর বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণের অভিঘাত এতটাই বেশি ছিল যে ভারী লোহার শিটও উড়ে যায়। লক্ষাধিক টাকার সামগ্রী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কীভাবে এই কারখানায় এমন ভয়ঙ্কর আগুন লাগল, তা খতিয়ে দেখতে ৫ সদস্যের একটি তদন্তকারী দল তৈরি করা হয়েছে।



 নিট পরীক্ষার ফল প্রকশের পরই ওঠে প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ। দেশজুড়ে নিট বিতর্কের মাঝেই ইউজিসি-নেট পরীক্ষা নিয়েও প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ। রাতারাতি বাতিল হয়ে যায় নেট পরীক্ষা। এরপর সিএসআইএর-নেট, নিট-পিজি পরীক্ষাও আপাতত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে।

পরীক্ষার 'কলঙ্ক' ঘোচাতে কেন্দ্রের বড় পদক্ষেপ, জালিয়াতি রুখতে কী কাজ করবে কমিটি, বোঝালেন শিক্ষামন্ত্রী
কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান।


প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ। বাতিল হচ্ছে একের পর এক পরীক্ষা। নিট-নেট বিতর্ক নিয়ে জর্জরিত শিক্ষা মহল। এই দুর্নীতি-জালিয়াতি রুখতেই এবার কড়া শিক্ষা মন্ত্রক। স্বচ্ছ ও সুষ্ঠভাবে পরীক্ষা প্রক্রিয়া পরিচালন করতেই কেন্দ্রের তরফে তৈরি করা হল উচ্চ পর্যায়ের বিশেষজ্ঞ কমিটি। কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানও জানালেন, “স্বচ্ছ, জালিয়াতি মুক্ত ও ত্রুটিমুক্ত পরীক্ষার ব্যবস্থা করা আমাদের অঙ্গীকার।”


নিট পরীক্ষার ফল প্রকশের পরই ওঠে প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ। দেশজুড়ে নিট বিতর্কের মাঝেই ইউজিসি-নেট পরীক্ষা নিয়েও প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ। রাতারাতি বাতিল হয়ে যায় নেট পরীক্ষা। এরপর সিএসআইএর-নেট, নিট-পিজি পরীক্ষাও আপাতত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে।



 জানা গিয়েছে, আজ দুপুর ২ টো থেকে শুরু হবে পরীক্ষা। চলবে বিকেল ৫টা ২০ মিনিট পর্যন্ত। ১৫৬৩ জনের পরীক্ষার্থীর তালিকায় রয়েছেন নিট-র টপাররাও। দেশজুড়ে মোট ৭টি কেন্দ্রে পরীক্ষা হবে। এর মধ্যে ৬টি কেন্দ্রই নতুন।

তালিকায় টপাররাও, আজ ফের NEET পরীক্ষা ১৫৬৩ জনের, আবার প্রশ্নফাঁস হবে না তো?
প্রতীকী ছবি।


নয়া দিল্লি: আজ ফের নিট পরীক্ষা। তবে লক্ষাধিক পরীক্ষার্থী নয়, ১৫৬৩ জন পরীক্ষার্থীর জন্য ফের আয়োজন করা হয়েছে নিট পরীক্ষার (NEET Re-examination)। তালিকায় রয়েছেন প্রথম দশে নাম থাকা টপারদেরও। গ্রেস মার্কস প্রাপ্ত পরীক্ষার্থীরাই আজ ফের পরীক্ষায় বসবে। তবে সকলের মনেই একটা প্রশ্ন, আবার প্রশ্ন ফাঁস হবে না তো?


নিট নিয়ে বিতর্কে জর্জরিত কেন্দ্র। পরীক্ষার আগের রাতেই ফাঁস হয়েছিল প্রশ্নপত্র, এমনটাই তদন্তে উঠে আসছে। ধরা পড়ছে একের পর এক ‘সলভার গ্যাং’-র মাথা। এদিকে, নিট পরীক্ষার গ্রেস মার্কস নিয়েও বিস্তর বিতর্ক রয়েছে। চাপে পড়েই ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি (National Testing Agency) বা এনটিএ সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছিল গ্রেস মার্কস প্রাপ্ত ১৫৬৩ জনের মার্কশিট বাতিল করা হচ্ছে। তাদের জন্য ফের পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। আজ, ২৩ জুন পুনরায় নিট পরীক্ষা হবে। ফল প্রকাশ হবে ৩০ জুন।

জানা গিয়েছে, আজ দুপুর ২ টো থেকে শুরু হবে পরীক্ষা। চলবে বিকেল ৫টা ২০ মিনিট পর্যন্ত। ১৫৬৩ জনের পরীক্ষার্থীর তালিকায় রয়েছেন নিট-র টপাররাও। দেশজুড়ে মোট ৭টি কেন্দ্রে পরীক্ষা হবে। এর মধ্যে ৬টি কেন্দ্রই নতুন।


পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে থাকবে কড়া নিরাপত্তা। উপস্থিত থাকবেন ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির আধিকারিকরাও। কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের তরফেও আধিকারিকরা আসবেন বলে জানা গিয়েছে।

প্রশ্ন ফাঁস বা অন্য ধরনের যেকোনও অপ্রীতিকর ঘটনা রুখতে পদক্ষেপ নেবে এনটিএ।